স্বাধীনতা তুমি

১৯৪৭ সনের ১৫ই আগষ্ট আমরা পেয়েছিলাম আমাদের স্বাধীনতা।
পরাধীন ভারতকে  ইংরেজদের থেকে মুক্তি করে স্বাধীনতার সূর্য্য দেখিয়ছিলো।
বিন্দু বিন্দু রক্ত দিয়ে যাদের জন্য আজ আমরা স্বাধীনতা পেলাম  তাঁদের এই
অবদানের কথা কি করে ভুলি।
স্বাধীনতা পেয়েও যেনো আমরা এখন‌ও স্বাধীনতার লড়াই করে চলেছি।
আজ এই নব প্রভাতের  পুণ্যকিরণে  স্বাধীনতা দিবসে সকল  দুঃখ
কষ্ট  দুর্নীতি  সব দূর করে  যেনো এক নূতন প্রভাতের সূর্য্যদ্বয় হোক।
যাঁদের রক্তে আমরা আজ স্বাধীনতা পেলাম তাঁদের  আত্মত্যাগের কথা
ভুলে নিজেদের মধ্যে লড়াই  করি।
বহু  ত্যাগের বিনিময়ে আজ এই  স্বাধীনতা।
স্বাধীনতা পেয়েও যেনো আমরা   পরাধীনতার বেড়ি পড়ে আছি।
হাজারো সন্তানহারা মায়েদের  বুক ফাটা আর্তনাদে  আকাশ  বাতাস‌ ও যেনো
কেঁদে উঠে প্রাণ।
দেশকে রক্ষা করতে গিয়ে আজ‌ও কত  সৈনিক শহীদ হচ্ছে।
ছোট শিশু কন্যা থেকে শুরু করে যুবতী কার‌ও নিস্তার নেই ধর্ষণ কারীদের
হাত থেকে। 
মেয়েদের ক্ষেত্রে  আজ‌ও  স্বাধীনতা  শুধু নামেই রয়ে গেছে। আমাদের এই
সমাজে এখন‌ও মেয়েদের অবহেলা করা হয়।
তবে আজ মেয়েরা মাথা তুলে বাঁচতে শিখেছে। অত্যাচারের জবাব দিতে জানে।
আমাদের এই স্বাধীনতা ৭৩ এ পদার্পণ করেছে । এই স্বাধীনতার   আলোয়
  হিংসা ,বিদ্বেষ, ধর্ষন নামে যে কালো অন্ধকার ঘিরে আছে  সে সব ধূলোয়
মিশে যাক।
স্বাধীনতার নূতন প্রভাতে  নূতন আলোয়  সকলের জন্য শান্তির বার্তা নিয়ে
আসুক।
ভালোবাসায় ভরে উঠুক এই দেশ । বন্ধুত্ব আর ভ্রাতৃত্বের সম্পর্কে সকলের হৃদয় ভরে উঠুক।
সবুজ শ্যামল এই দেশ এগিয়ে চলুক সমৃদ্ধির পথে।
                                                জয়হিন্দ
























মন্তব্যসমূহ

এই ব্লগটি থেকে জনপ্রিয় পোস্টগুলি

সময় বা পরিস্থিতি মানুষকে অনেক কিছু শিখিয়ে দেয় ,,,,কিন্ত অনেক সময় সময়ের উপর সব ছেড়ে দেওয়া টাও বোকামি বলে মনে হয়,,

মূল্যবোধ

সব ভালোবাসার নাম হয় না