পোস্টগুলি

আগস্ট, ২০২০ থেকে পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে

বাইলাকূপ ভ্রমন

বেড়ানো  আমার একটা নেশা ,,,,সেটা একদিনের জন্য হ‌উক বা কিছুদিনের জন্য হউক তাতে কোন অসুবিধা নেই ,,,,,বেড়াতে যেতে পারলেই হলো,,,,,কিছুদিন হয়ে গেলে মনের ভিতর যেনো কেমন করে ইস,,,একটু যদি কোথাও  ঘুরতে যাওয়া হয় মন্দ হয় না,,   এই বছর মে মাসে একটা ট্যুর ছিলো সবাই মিলে বেড়াতে যাওয়ার ,কিন্ত  করোনার তান্ডবলীলায় সব পন্ড হয়ে গেলো,,,,,,, বেড়াতে তো যেতে পারবো কিন্ত এখন সব থেকে যেটা সেটা হলো সবার সুস্থ কামনা,  সবাই একটা সুস্থ জীবনে ফিরে আসুক এটাই ঠাকুরের কাছে প্রার্থণা। দুদিনের ভ্রমন..…..."বাইলাকূপ " বৌদ্ধ গোল্ডেন টেম্পল। নতুন বছরের আগমন ,চারিদিকে সবাই পার্টি ,পিকনিক আড্ডা এইসব নিয়ে ব্যাস্ত সবাই,,, তার‌উপর ব্যাঙ্গালোরের রাস্তা ঘাটে  দম বন্ধ ট্রাফিক  ,,,,, তখন আমার  মনে হলো  চলো না যাই কোলাহল মুক্ত শহর থেকে দূরে কোথাও একটু ঘুরে আসি,,,সেইঅনুযায়ী প্লান করা হলো  বাইলাকূপ যাওয়ার । ১৯শে জানুয়ারী ভোর ৫টায় উঠে স্নান সেরে এককাপ চা বিস্কিটখেয়ে বাইলাকূপের জন্য র‌ওনা হোলাম,,, ৪ঘন্টার রাস্তা ,,,,,  রাস্তাতে কোথাও ব্রেকফাষ্টটা সেরে নেবো,,,,তাই ৮টার মধ্যে বেড়িয়ে পড়েছি কারন  ৪.৩০  বৌদ্ধ টেম

অঙ্গীকার

ভারত মাতার সকল বীর সন্তান জেগে উঠো   সময় এসেছে ভারত মাকে রক্ষা করার অনেক  সংগ্রাম রক্তক্ষয়  অশ্রুজলের বিনিময়ে  পেয়েছি মোরা তেরঙ্গা পতাকা  ভারত মাতার বৃটিশ পুলিশের গুলি রক্তাক্ত শরীর  তবুও থামেনি পথ  সামনে  এগিয়ে চলা আতঙ্ক ভয় হিংসা ধর্ম বিদ্বেসের কালো অন্ধকারে  ভারত মায়ের আঁচল  আজ হয়েছে  কালা হাতে তেরঙ্গা মূখে বন্দেমাতরম শেষ রক্ত বিন্দু দিয়েও  স্বপ্ন ছিলো শুধু স্বাধীনতার লক্ষে তেরঙ্গা আমাদের অমূল্য প্রাপ্তি গর্ব দেবো না কারো হাতে  কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে করবো আমরা ভারত মাকে রক্ষে।

স্বাধীন ভারত

স্বাধীন ভারত স্বাধীন ভারতের আমরা নাগরিক এটা শুনতে যেমন ভালো লাগে  বলতে‌ও তেমন ভালো লাগে ,,,স্বাধীন আমার জন্মভূমি আমার স্বদেশ,,,,,, যাদের জন্য আমরা স্বাধীনতার মূখ দেখেছি  তাদের কথা কি করে ভুলি,,,,,,,লক্ষ লক্ষ মানুষ জীবন উৎসর্গ করেছেন ,,,,,,,বিপ্লবী মহাপরুষরা হাসতে হাসতে ফাঁসীর দড়িকে চুম্বন করেছেন,,,,,,হাজার হাজার স্বাধীনতা সংগ্রামীদের ফাঁসী,দীপান্তর, কালাপানির অবর্নণীয় নির্যাতন আর রক্তের বিনিময়ে আমাদের এই স্বাধীনতা,,,,,,,,,আজকে আমরা যে ভারতবর্ষকে দেখছি তার থেকে মনে হয় পরাধীন হয়ে থাকা ভালো ছিলো নয় কি???,,,,,,,,,খুব কষ্ট হয় যখন  দেখি আমরা একেই দেশের ভারত মায়ের সন্তান হয়ে   যখন নিজের দেশকে বদনাম করার জন্য উঠে পড়ে লাগে,,,,,, বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে আমরা কি  বলতে পারি সত্যি আমরা স্বাধীন,,,,,,,,,নাকি  স্বাধীনতা দিবসের দিন  কিছু হোয়াটস অ্যাপ বা ফেসবুকে কিছু পোষ্ট দিয়ে আমরা বলি আমরা স্বাধীন আমরা স্বাধীন ভারতের নাগরিক,,,,,,,শুধু বৃটিশ শাসকদের হাত থেকে মুক্তি লাভ করাই শুধু স্বাধীনতা হোতে পারে না ,,,,,,,  যেসব শহীদের আমরা শ্রদ্ধাঞ্জলী দিচ্ছি  যাঁদের  রক্ত লেখা হয়েছিলো ভারতের স্বাধীনতার

স্বাধীনতা তুমি

স্বাধীনতা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি ভারত বর্ষ আমার জন্মভূমি নানা ভাষা নানা জাতি কত না    বেশভূসা জননী জন্মভূমি তোমাতেই আমার     ভালোবাসা আমার দেশ আমার গর্ব আমার          ভারতবর্ষ কত শহীদের রক্তে লেখা নাম          ভারতবর্ষ সুজলা সুফলা শষ্য শ্যামলা ভারত            আমার দেশ  বিশ্বের দরবারে  শীর্ষ শিখরে          আমার স্বদেশ তাই তো মোরা গর্বে বলি এই দেশেতে  জন্ম যেন এই দেশেতে মরি  সকল দেশের সেরা দেশ আমাদের সদায় যেন বলতে পারি যাদের জন্য পেয়েছি মোরা স্বাধীনতা কি করে ভুলি তাদের বলিদানের কথা কত রক্ত ঝড়েছে এই দেশের মাটিতে গাঁথা হয়ে আছে লক্ষ লক্ষ শহীদের  আত্মবলিদান ইতিহাসের পাতাতে যাঁদের জন্য পেলাম স্বাধীনতা শ্রদ্ধাঞ্জলী  দিয়ে করছি তাঁদের স্মরন ত্রিবর্ণরঞ্জিত পতাকা উড়িয়ে করি  মোরা ভারতমাতাকে নমন। ©️উমা মজুমদার  ১৫/৮/২০২০

শুভ জন্মাষ্টমী🙏🙏🙏🙏

এলো তোমার শুভ জন্মদিনের শুভক্ষন  বর্ষনমূখোর মহাভাদরে দৈবকীর কোলে জন্ম নিলে তুমি  মাতুল  কংসের কারাগারে চারিদিক আলোয় উদ্ভাসিত করে ভাদ্র  মাসের  অষ্টমী তিথিতে  বিষ্ণুর মহাবতার পবিত্র হলো ধরাভূমি  জন্ম নিলে তুমি এ ধরাতে  দয়াল হরি দিনের দীনবন্ধু পরমেশ্বর আছো   যে সদায় হৃদয় মাঝে  শঙ্খ চক্র গদা পদ্ম ধারনকারী  তুমি জগৎ  সংসার প্রাণদাতা সকলের কাছে  মথুরা বৃন্দাবন  আলোয় আলোকিত জন্মাষ্টমী তিথির  মহা ধূমধাম মন্দিরে মন্দিরে ভক্তদের সমাগম প্রভুর দর্শনে জপিছে  অনন্ত কৃষ্ণনাম শান্তি কল্যান মানবতাবোধের শক্তিতে প্রানিত  হোক তোমার এই শুভ জন্মক্ষন দূর করো প্রভু  মহামারীর কালো ঘনাঘটা পৃথিবী জুড়ে  ছড়িয়ে পড়ুক তোমার কৃপা বর্ষণ।

শ্রাবণী পূর্ণিমা

ফুলে ফুলে সেজেছে কদমতলা  সখীরা সব নৃত্য করে  প্রেমের জোয়ার এলো বৃন্দাবনে  কৃষ্ণের বাশীঁর সুরে তমাল তরু শাখে শ্রাবনের  ঝুলা ঝুলে কৃষ্ণ সনে রাধা রানী প্রেমের  দোলায় দোলে কৃষ্ণ প্রেমে রাই পাগল , এই মধুমাসে  মধুমিলনে একেই অঙ্গে দুটো প্রাণ  মিলিছে আজ যুগল মিলনে ললিতা বিশাখা দোলা দেয়  রাধা কৃষ্ণের দোলায় আকাশ ভরা  চাঁদ জ্বল জ্বল করে  শ্রাবনী পূর্ণিমায়।

২২শে শ্রাবন🙏🙏🙏

, আজ ২২শে শ্রাবণ,,,,কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রয়ান দিবসে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করি🙏🙏🙏🙏🙏💐💐💐💐 আজ ২২শেশ্রাবণ,,,,,,,,,বাংলা সাহিত্যের সবচেয়ে উজ্জ্বল নক্ষত্র কবিগুরু  রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রয়াণ দিবস,,,,  এমনই এক বর্ষার দিনে তাঁর বিদায় যাত্রা হয়েছিল,,,,,, বর্ষণ মুখরিতরাতে স্তব্ধ হয়েছিল তাঁর দিন রাত্রির কাব্য রচনা,,,,, বিদায় নিয়েছিলেন আমাদের সকলের প্রিয় কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর,,,,,,,  ১৩৪৮ সালের এই দিনেই তাঁর প্রিয় ঋতুতে নির্বাপিত হয়েছিল কবির জীবনপ্রদীপ বর্ষাই ছিল কবির সবচেয়ে প্রিয় ঋতু,,,,,,,,,,, বাঙালির প্রাণের এ কবি নশ্বর পৃথিবী ছেড়ে চলে গেলেও অসামান্য রচনা ও কাজের মধ্যে  আজো বেঁচে আছেন তিনি প্রেরণা দাতা হয়ে......... কে বলে তুমি নেই,,,,, তুমি আছ আমাদের  আত্মার ভিতরে,,,,,, আমাদের  প্রতিটি স্বত্ত্বায়,,,, আজো তোমার বিচরণ,,,, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর কবিতায় লিখেছিলেন ‘মৃত্যু দিয়ে যে প্রাণের মূল্য দিতে হয়,,,,,,,সে প্রাণ  অমৃতলোকে,,,,মৃত্যুকে করে জয়,,,,,, বাস্তবেও সৃষ্টির মধ্য দিয়ে অনুকরণীয় কর্মের মধ্য দিয়ে মৃত্যুকে জয় করেছেন তিনি,,,,,,,  তাই তো সতত তিনি রয়েছেন বাঙালির মণিকোঠায়,,,,,,