পোস্টগুলি

নভেম্বর, ২০২০ থেকে পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে

জীবনের তাল

জীবনের ছন্দে বেজে যায় জীবনের একতারা   কখন‌ও সুখ কখন‌ও দুঃখ ছন্দে বাজে তারা রিনিঝিনি নুপুরে মিষ্টি মান অভিমান বিশ্বাস অবিশ্বাসে তাল কাটে সমান সুর ও তাল  ঠিকঠাক হলেই জীবনের ছন্দটা হয় সেরা।

জীবনের রং

বিস্তির্ণ আকাশ মনের খোলা জানালা রংধনুর সাতরঙে ইচ্ছেদের ডানা মেলা দূর দিগন্তে স্বপ্নরা ছুটে মেঘের হাত ধরে চাওয়া পাওয়ার হিসেব বাস্তবতার ভীড়ে শহরের কোলাহলে সহস্র শব্দের গল্প কথা ক্ষত বিক্ষত মন ভরে দেয় কবিতার  পাতা নিস্তদ্ধ রাত সঙ্গী হয় একাকিত্বের ব্যাথায় জীবনের সত্য মিথ্যা  সময়ের কাঠগড়ায় চেনা পৃথিবীর অচেনা মানুষ মেপে কথা বলে হারানো দিনের বোঝা নিয়ে স্মৃতি বয়ে  চলে মনের ছেঁড়া পাতায়  নতুন  শব্দের করি খোঁজ সৃষ্টির খেলায় অটল দিন রাত্রি আসে রোজ।

হেমন্তিকা

নতুন দিনের নতুন আশায় ষড়  ঋতুতে ধরিত্রী সাজে আসা যাওয়ার রীতি নিয়মে  বিদায়ের সুর বাজে আলো জ্বেলে  আসে মা শ্যামা সকল আঁধার যায় কেটে মিষ্টি আলোকে দিবাকর হাসে সোনালি ধানে ভরা মাঠে শিরশিরে হিমেল হাওয়া   কুয়াশার চাদরে শহর  ঢাকা হিমবায়ুর পালকি চড়ে নেমে  আসে যে  হেমন্তিকা রূপের রাণী সুখের বানী  নবান্নতে খুশীর হাওয়া উদাসী মনে ঝরা পাতা  নতুনের পথ চাওয়া মাঠে মাঠে সোনালি  ধান  ঘরে ঘরে  উৎসবের খুশী হেমন্তের আলোকচ্ছটায় কৃষকের  মূখের  হাসি নতুন ধানের  সুঘ্রানে  খেজুড়  গুড়ের  রসে মায়ের হাতে পিঠে পুলি   কে না খেতে  ভালোবাসে।

মনের কথা

মন রে  তুই কেন শুনিস না কথা  ছুটা ছুটি করিস না পাবি ব্যাথা বাঁধ মন টাকে শক্ত করে ভালো থাকবি এই সংসারে শিখে নে ভালো থাকার মন্ত্রটা  মনের  সাথে  কর সমঝতা।