পোস্টগুলি

বাগদেবীর আরাধনায়

মাঘ মাসের শুক্লপঞ্চমী তিথি  বাগদেবীর আরাধনায় সকাল সকাল স্নান সেরে মেতে উঠেন সরস্বতীর বন্দনায় দেবী সরস্বতীর পাদপদ্মে পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ  মণ্ডপে মণ্ডপে পূজার আনুষ্ঠানিকতা সরস্বতী পুজো মানে পবিত্র আনন্দ  মিষ্টি দুষ্টুমির সারাদিন ব্যস্ততা মায়ের আর্শীবাদে বিদ্যা ,বুদ্ধি জ্ঞানের আলোতে হৃদয় ভরে‌  অশিক্ষার অন্ধকারকে দূর করে  বিদ্যার দেবী আসে মা ঘরে ফুল বেলপাতা দোয়াত কলম ,শ্লেট  পেন্সিল,ব‌ই পত্র  সারি সারি রঙ বেরঙের কাপড়ে ছাত্রছাত্রীরা  ধুতি পাঞ্জাবী হলুদ রঙের শাড়ি  ছোট শিশুদের হাতে খড়ি অ আ ক খ লিখে  প্রথম শিক্ষায় হয় ব্রতী বর্ষিত হোক মায়ের আর্শীবাদ  জ্ঞানের অধিষ্ঠাত্রী তুমি মা দেবী সরস্বতী ।

মনুষ্যত্বের জলাঞ্জলী

মনুষ্যকূলে জন্ম মানুষ  সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব দয়া মায়া উদারতা  মানুষের শ্রেষ্ঠ গুণ আকৃতিতে মানুষ হলেও  স্বভাব আচরণে অমানুষ স্বার্থপর পৃথিবীতে স্বার্থ  ছাড়া সবে মুল্যহীন। নিঃস্বার্থ পরোপকারী  বিবেক মনুষ্যত্ববোধ  কে আপন কে পর  দয়া মায়ার জলাঞ্জলী। মুখোশের আড়ালে  বহুরূপী যায়না চেনা  লোভ লালসা হিংসা  বিদ্বেষে মনুষ্যত্ব বলী।

বন্ধু

সর্ম্পকের সুতোয় নয় যে রক্তের বন্ধন আত্মার আত্মীয়ে বোনা বন্ধুত্বের জীবন । সুখে দুঃখে  থাকবে  হাতটি ধরে বন্ধুর বিশ্বাসে মিলায় বস্তু বন্ধুত্বে জীবন ভর। টাকা দামী কাপড় চোপড় বন্ধুত্বে মুল্যহীন জীবন রাঙ্গিয়ে দেয় মনের মত বন্ধু একজন। স্বার্থ ছাড়া এমন বন্ধু কোথায় খুঁজে পাবে  সময়ের খোলশে বন্ধুত্বের বদনাম স্বভাবে সকাল বিকেল বন্ধু ছাড়া কাটতো না একদিন চেনা অচেনার মাঝেও পাওয়া যায় বন্ধু স্বজন। আসল নকলের মাঝেও ভালো বন্ধু জীবনে চায় অনন্তকাল ধরে বন্ধুত্বের সম্পর্কে র সুতো গেঁথে যায়।

পৌষ পার্বণ

✍️উমা মজুমদার ১৬/১/২৩ শিশির ভেজা ঘাস নতুন ফসলের গন্ধ ঘরে ঘরে আদর ভালোবাসা দিয়ে আনন্দের সহিত পিঠে গড়ে বাংলা সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের পালা বদল পৌষ পার্বণ রীতি নিয়মে পৌষ সংক্রান্তির নিয়মাচার করে পালন মকর সংক্রান্তির পুণ্যস্নান পূর্ণাথীর ভীড় গঙ্গাসাগরে পৌষ পার্বণে পিঠে পুলি পাটিসাপটা নতুন খেজুর গুড়ে দুধ পুলি, চন্দ্র পুলি ,মুগ পুলি  কতনা নাম পিঠের বাহার শীতের মরশমে পিঠের উৎসব দিনে রাতে করে আহার।

মনের গাড়ী

✍️ উমা মজুমদার ১৬/১/২৩ মনের গাড়ী..... মনের গাড়ী ছুটছে সুদূর অতীতে সাজানো গোছানো কামরা স্মৃতিতে গন্তব্য নেই নিরন্তন ভালোলাগার অনুভূতি সময়ের নিষ্ঠুরতায় হারায় ভালোবাসার স্মৃতি।

শীতের আমেজ

সোয়েটার মাফলার মাথায় টুপি কনকনে ঠান্ডায়  কাজের  মাসি  নেয় ছুটি বাজ পড়ে গিন্নির মাথায়  ঝাটা হাতে সাফ সাফাই শীতের সুখ নেই কপালে  শীতের জলখাবার লুচি আলুর দম হয় না মন্দ খেলে গিন্নির হয়রানি তাই  না দেখে কর্তা এসে কাছে ঘেঁসে  ছাড়ো এইসব রান্না বান্না শীতের আমেজ পার্কে বসে  শীত আসে  বছরে একবার শীতের আনন্দে সবাই মাতে  শীতের আড্ডা দেবো জমিয়ে গরম চায়ের কাপ ঠোঁটে শীতের খাওয়া দাওয়া বনভোজন সবে  লাগে ভারী মজা ঘরে ঘরে পৌষ সংক্রান্তি নলেন গুড়ের  পিঠে পুলি ভাজা দুপুরে সোনালী রোদ হাতে কমলা লেবু স্মৃতিতে মনে পড়ে বসন্ত প্রতিক্ষায পুরোনো যায় নতুনের আনন্দে জীবন জুড়ে ।

চিরকুট

রাতের নিস্তব্ধতা যখন একলা আকাশ ছোঁয় উদাসী মন হোঁচট খায় মনের চিলেকোঠায়  মন ভাঙ্গে কাঁদে বিশ্বাস কেনো বারবার  হারে আঘাতের বদলে আঘাত নয় মনকে শান্ত করে।